জল হিজল অনল – ৭ম পর্ব

সিদ্ধান্ত নিয়েই ফেলেছি , রুপুকে প্রেম পত্র দেব, তবে তা অবশ্যই ইংরেজিতে অর্থাৎ লাভ লেটার। রুপু পাঠশালা পাশ করেছে, অথচ তার হাতের লেখা তার হাতের আঙ্গুলের মত চম্পাকলির মত সুন্দর হয়েছে, পাড়ার নতুন বউদের বাপের বাড়ির চিঠি লিখে লিখে।

Read more

জল হিজল অনল – ৬ষ্ঠ পর্ব

আমার বুঝতে বাকি রইল না এদের গায়ে এক বিন্দু রক্ত থাকতে আমাকে ঘানি টানতে দিবে না। আমার হাত যত নরম হয় ওদের হাত তত শক্ত হয়। আমাকে টেনে নিয়ে বিছানায় বসিয়ে দিলো। দিদি তার স্বমূর্তিতে ফিরে গেল। পিসি যতটা সম্ভব নিজের জাঁত বাচিয়ে দিদিকে সাহায্য করতে লাগল। দিদি তার রোগ শোক চিন্তা সব ভুলে গেল।

Read more

জল হিজল অনল – ৫ম পর্ব

পিপ্যা, কাইল্যা , ঘনা, বিশু রীতিমত আমাকে প্যাঁচিয়ে ধরলো। লেডু কি ? যেহেতু আমি মোহনগঞ্জ থাকি তাই লেডু দেখেছি এবং শুনেছি। তাই লেডুর বিবরণ আমাকে দিতে হবে। আমি সত্যি বললে লেডু (রেডিও) একবার দেখেছি কিন্তু কিভাবে চালাতে হয় তা জানি না। কিন্তু এদের কাছেত আর একথা বলা যাবে না । তাই যতই একটা কিছু বোঝাতে যাই ততই ওরা হা হয়ে থাকে । আসলে দেখাটুকুর বাইরে বলার তেমন সাধ্য কই যে বুঝিয়ে বলব? এই যেমন থোর বড়ি খাড়া , খাড়া বড়ি তোর। আমি যতই এদের কে সিনেমার গল্পের দিকে নিয়ে যেতে চাই ওরা ততই রেডিওর বিবরণ শুনে নিতে চায়। শেষে এই রফা হল বিয়ে বাড়িতে গিয়ে আমি লেডু চালিয়ে এদের শোনাব।

Read more

জল হিজল অনল – ৪র্থ পর্ব

আজ মনে হচ্ছে এসব ফাঁকি। ছেলে ভোলানো কথা আর চলে না। আজ যে বিছানায় বসেছি সেখানে শুয়ে পড়তে পারছি না আগের মত। কেমন যেন নিজেকে অপরাধী লাগছে।
পিসী এসে আমাকে বাচিঁয়ে দিল, বলল উঠ এইখান বইয়া রইছছ দেরী হইতাছে আইজ বৌদি ঘরে উঠতে দিত না। আমি পিসির দিকে না তাকিয়ে সোজা বললাম পুন্যিদি তুমি ত আমরার পাড়াত যাইবা তেল লইয়া, তইলে আমরার সাথে লও। পিসি আকাশ থেকে পড়ল। বলল- আমার হাতে শান্তি দেখতাছচ না !

Read more

জল হিজল অনল – ৩য় পর্ব

জেঠা জালটাকে এমন ভাবে টান মারলেন, সবগুলো মাছ জাল থেকে যেন উড়ে এসে আমাদের নৌকায় পড়ল। একটা মাছ ও নদীর জলে পড়ল না। অথচ এই কাজটা জেঠার কাছে অত্যন্ত স্বাভাবিক। তিনি এটা অনায়াসেই করতে পারেন। নিয়মিত চর্চা মানুষের অনেক বিশেষ দক্ষতা বাড়িয়ে দেয়। মাছ নিয়ে ফিরতে ফিরতে আমি বাবাকে জিজ্ঞেস করলাম, বাবা দাদু এখন রাইতে বাইর হয় না?

Read more